স্বপ্ন সাধ

কেবলই স্বপ্নটি দেখতে ইচ্ছে করে
তোমাকে ছুঁয়ে দেবার স্বপ্ন।
নিষ্পাপ শিশু হয়ে ঘুমের অতলে তলিয়ে যাবার ক্ষণে
হরেক রকম কাজের ভিড়ে ঘর্মক্লান্ত হয়ে উসখুস করার ক্ষণে,
একটু ছুঁয়ে দিতে ইচ্ছে করে।
উদাস নয়নে খোলা জানালায় আকাশ পানে তাকিয়ে
নিজেকে সাদা মেঘের ভেলায় কল্পনা করে সুখ অনুভব করো
ঠিক তখনই,
ছুঁয়ে দিতে মনটা আকুলিবিকুলি করে উঠে।
মুঠোফোনে নিবদ্ধ আঁখি ঠোঁটে অমায়িক হাসি
মনে দোলা দিয়ে যাচ্ছে সেই কিশোরী লগন আনমনে
ক্ষণটা বড় যুতসই,
আলতো ছুঁয়ে অনুভব করতে ইচ্ছে করে।
সন্তানের চোখে নির্ভরতার আশ্বাস খুঁজতে খুঁজতে
মুখে তুলে দিচ্ছো শেষ মুঠো খাবার
সেই অপলক দৃষ্টির পরশ পেতে
ছুঁয়ে দিতে ইচ্ছে করে।
তৃপ্তির অবাক দৃষ্টি ভরা জোছনা গলে গলে পড়ে
উপলক্ষ্যহীন উপলক্ষ্যে তোমার করতলে নগন্য বেলি ফুলের মালা
তৃপ্তির আমেজ পেতে
একটু স্পর্শ নিতে খুব ইচ্ছে জাগে।
ব্যস্ত সড়কে রাস্তা পারাপারে আনমনে হাত বাড়িয়ে
নরম মোলায়েম হাতখানি তুলে নিতেই প্রেমকাতর আঁখিযুগল
পার্থিব আঁখিদুটির স্পর্শ পেতে
জনম জনম হাঁটতে রাজি
ব্যস্ত সড়কে কিংবা রাস্তা পারাপারে।
বাজারের ব্যাগটি তুলে নেবার ছলে ছুঁয়ে দেবার আকুলতা
অফিস ফেরত ভারহীন ভার লাগবে ইচ্ছার তীব্রতা
কেবলই ছোঁয়া পেতে চাই।
অনুক্ষণ তীব্র থেকে তীব্রতর হচ্ছে
তোমার ছোঁয়া পাবার স্বপ্ন সাধ।

-বাউল সাজু

Leave a Reply

Your email address will not be published.