জাগো নারী

আর কতকাল থাকবি বন্দি, বন্দি থাকবি নারী?
ধর্ষিতা হবি, লাঞ্ছিতা হবি,পুরুষতন্ত্রের বাড়ি?
ভোগ্যপণ্য খেদমতকারী শয্যাসঙ্গিনী
আর কতকাল প্রতিবাদহীন মরবি মাতঙ্গিনী?

আর কতকাল নেঙলী, ইলা চুপ থাকবি বল
আমোদী পাত্রী, শস্যক্ষেত্র ফেলবি চোখের জল!
কোথায় নারীরা, নারীরা কোথায়, কোথায় নারীরা মানুষ?
পুরুষ শাসন শোষণ পেষণে নারীরা এখনো বেহুঁশ!

ঢুস খেয়ে খেয়ে জ্ঞান ফেরেনি, এখনো অবলা জাতি
নারীর ভাগ্য নির্ণয় করে কোন সে দাতা পতি?
জাগো নারীরা, নারীরা জাগো ফুলন দেবী হয়ে
কাঁপুক পুরুষ শাসনতন্ত্র সব ফুলনের ভয়ে।

ভয় ভরসা আস্থা প্রতীক পুরুষ কালে কালে?
নারীরা নীচ অপবিত্রা পুরুষ কুলীন ডালে?
পুরুষ পোষ্য হয়ে নারীরা নিজেকে ভুলে গেছে
দিন দিন নারীরা দেশে যাচ্ছে ক্রমেই পচে!

ধর্ষিতাদের বুকের জ্বালা নারীরা দেখে না ফিরে
এমন সুযোগ পেয়ে পরুষ নারীদের খায় ছিঁড়ে।
বশ্যতা মেনে হাতির মতো নারীরা করে শক্তি শেষ
সুবিধেখোর বেকুব নারীরা ভাবে তারা এই তো বেশ।

হায়েনা হয়ে দাঁত বসাচ্ছে লোভী পুরুষ নারীর কায়
দর্শক হয়ে দাঁড়িয়ে নারীরা জ্বালা ধরে না তবুও গায়।
অনেক নারীই লজ্জিত হয়, কেউ আগুনে দেয় নাড়া
দু’য়েক জনা করে প্রতিবাদ বাকির মুখে তালা মারা।

কোথায় নারীরা, নারীরা কোথায়, বিরলরূপে নারীরা কই?
ধর্ষিতা সব নারীর টানে নারীরা হয় নি নারীর সই।
শিশু কিশোরী অর্ধ বয়সী ধর্ষিতা হয় দিনকে দিন
তাও নারীদের মন গলে না, নারীরা কি বিবেকহীন?

আয় রে নারী, চলরে নারী, চলরে নারী সামনে চল
মানুষ হওয়ার দাবির জন্য আন্দোলনে নামারে ঢল।
মান পেলি কই মানুষ বলে, মানুষ হওয়ার কর দাবি
আর কতকাল বন্দি হয়ে বন্দিশালার ভাত খাবি?

নারী পুরুষ সবাই মানুষ এই মানসিক হোক সমাজ
আগেকার ভুল দৃষ্টি দেখে প্রজন্ম পাক ভীষণ লাজ
ভাঙুক ভাবনা দৃষ্টিকটু নোংরামি চাল চালবাজি
আয় কে হবি সোনার মানুষ, মানুষ হতে কে রাজি?

গুলজার হোসেন গরিব

Leave a Reply

Your email address will not be published.