খুব তো বলেছিলে ভালোবাসি

খুব তো বলেছিলে ভালোবাসি।

খুব তো বলেছিলে আমাকে ছাড়া বাঁচবে না।
আমাকে কল্পনা না করে তুমি না কি
একটি রাতও ঘুমাতে পারোনি।
আমাকে নিয়ে না কি দারুণ দারুণ!স্বপ্ন দেখতে,
স্বপ্নে আমার হাত ধরে না কি
ঘুরে বেড়াতে দেশের নানান জায়গা।
তোমার কোলবালিশকে তুমি আমায় মনে করে
সারারাত না কি বুকে জড়িয়ে শুয়ে থাকতে।
সকাল হতে না হতেই তুমি আমাকে দেখতে
ব্যাকুল হয়ে উঠতে।
পাঠশালার মাঠ তুমি তোমার করে নিতে,
আমার জন্য,আমাকে একটু কাছে পাওয়ার জন্য।
বিনয়ী হয়ে বলতে আমি তোমাকে চাই।
তোমাকে নিয়ে আমার জীবন বদলাতে চাই।
বলেছিলে আমাকে না কি তুমি একটা
সুখের পৃথিবী এনে দেবে,
সেখানে তুমি হবে রাজা আর আমি হবো রাণী।
চোখে কোনো লজ্জা না রেখে পাঠশালার সবাইকে
জানিয়ে দিতে ও আমার প্রেম,ভালোবাসা,জীবন।
আমাকে ছাড়া তুমি না কি বাঁচতে পারবে না।
খুব তো বলেছিলে আমাকে না পেলে তুমি
আত্মহত্যা করবে,জীবন বরবাদ করে দেবে।
তোমাকে সত্যি ভেবে,তোমাকে সুখ ভেবে,
আমিও তোমাকে আমার করে নিলাম।
আমাদের বিয়ে হলো,তুমি বউ করে নিয়ে গেলে
তোমাদের বাড়িতে,আমাদের সংসার শুরু হলো।
শুরু হলো সেই তুমি আর এই তুমির পার্থক্য।
যে চোখ আমাকে নিয়ে দারুণ স্বপ্ন দেখতো,
সে চোখ এখন চরম গরম দেখায়।
যে হাত আমাকে একটু ছোঁয়ার জন্য
সারাক্ষণ আমতা আমতা করতো,
সে হাত প্রায়শই আমাকে আঘাত করে।
যে মন আমাকে সবসময় কাছে চাইতো,
সে মন এখন শুধু দূরে ঠেলে।
যে রাতগুলো আমাকে স্বপ্ন না দেখে কাটেনি,
আজ বাস্তবে থেকেও সেই স্বপ্ন আমি হই নি।
যে তুমি আমাকে রাণী বানাতে চেয়ছিলে
সেই তুমি আজ দাসির সম্মানও দাও না।
বলো এমন কি কথা ছিলো?
খুব তো বলেছিলে ভালোবাসি
তবে কি এটাই তোমার প্রকৃত ভালোবাসা?

-গুলজার হোসেন গরিব

Leave a Reply

Your email address will not be published.