কবিতা?

একটু ভালোবাসার জন্য,
প্রিয়ার জানালায় ;
দিনের পর দিন চোখ রেখে বলেছিলাম ভালবাসি।
কিন্তু শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কাঁচের দেয়ালে,
গুমরে মরেছে ভালোবাসা ;
তবু তোমরা তাকে নাম দিলে কবিতা !

ছটফটে ক্ষুধায়,
একটা রুটি ভেবে হাত বাড়ালাম চাঁদের দিকে ;
শেষমেশ চাঁদটাকেও ঢেকে দিয়েছে,
শহরের সব থেকে উঁচু অট্টালিকা ।
তীব্র ক্ষুধায় কুঁকড়ে কুঁকড়ে নিঃশেষ হয়েছি আজন্মকাল,
অথচ তোমরা তাকে নাম দিলে কবিতা !

অক্লান্ত বিষণ্ণতায়,
নিরাবতা চেয়ে জীবনের কাছে ছুটি চাইলাম শেষে।
অথচ গগনবিদারী গাড়ির হর্ন আর গুমোট কান্নার চিৎকারে,
প্রতিদিন একটু একটু করে ক্ষয়ে গেছি,
ঝরে যাওয়া নক্ষত্রের মত ;
কি আশ্চর্য তোমরা তাকে নাম দিলে কবিতা !

দৈনন্দিন পোড় খাওয়া জীবনের গল্প গুলো,
পাঁজর খুঁড়ে বর্ণমালা ছুঁতেই – বাক্য হয়েছে আলগোছে ;
যদিও আমি শুধু উগড়ে দিতে চেয়েছিলাম,
না বলা কথা গুলো ;
তবু তোমরা তাকে নাম দিলে কবিতা !

-রিয়াদ রানা

Leave a Reply

Your email address will not be published.