ক্ষয়ে যাওয়া নগরে (কবিতা)

একরাশ শূন্যতা
ছেয়ে যায় দুপুরের ক্লান্ত রোদ
জ্যাম বাঁধে ,
জ্যাম ছাড়ে,
মস্তিষ্কে তখন ও কারফিউ
আবসাদে আশ্রয় ।

এদিকে হিমধরা ঘরে লুকিয়ে
ঝিমাক আমার সস্তা বোধ ..
রাস্তায় সারি সারি মানুষের দল …
গন্তব্য যে যার শিবিরে…
নুয়ে পড়ে ধুঁকছে
বুড়ো রিকশাওয়ালা..
অস্থির ভাবে জানান দিচ্ছে
নগর অ্যাম্বুলেন্স … ।

এখানে মানুষের জীবনের চেয়ে
রাজতন্ত্রের ধারক দের
নির্বিঘ্নে বাড়ি ফেরা উত্তম…।

না আমার কবিতা তো..
ওই বুড়ো রিক্সাওয়ালার
ঘামের গন্ধ ছুঁয়ে যায় নি …
ছুঁয়ে যায়নি বন্ধুর কাঁধে
মাথা রেখে আগামির স্বপ্ন দেখা
ওই কিশোরীর কোমল মন …
হয়ত সে জানেই না …
আগামি দিন গুলো
রাষ্ট্র যন্ত্র তার জন্য কত
অবহেলিত যন্ত্রণা চেপে রেখেছে …
চেপে রেখেছে কি দুর্বিষহ
ক্লান্তি কর জীবন …
অথবা মাঠ জুড়ে ধান ক্ষেত…
অসহ্য তিব্র বাতাস …
অনাবিল শ্যামলতা… ।
অথবা খুড়ে খুড়ে চলা নাগরিক মন….. ।।

-রিয়াদ রানা

Leave a Reply

Your email address will not be published.