প্রতিরোধ

নারীর জন্য কে বানিয়েছে চুলের কাঁটা
কে দিয়েছে শলার ঝাটা?
তুমি কি কভু ভেবেছো মেয়ে?
তাদের চিন্তার অগোচরে তোমার হাতে
দিয়েছে তুলে নির্ভেদী এক অস্ত্র!
যতো পারো আঘাত করো
ধর্ষকের ওই অণ্ডকোষে
মিটিয়ে দাও শিশ্নের অহম
চুলের ওই কাঁটা বিঁধে,
আর জানো কি কৌশল কোনো?
জোরছে ঐ মারবে আঘাত-ছেদবে
কান ধর্ষকের ওই নষ্ট প্রাণ!
আর কতকাল থাকবে বসে
আলতা পরে নেইলপলিশে নখ রাঙিয়ে
সময় এবার হয়েছে মেয়ে
কব্জি এবার নাও শানিয়ে
আছে যতো কলাকৌশল শিখে
এবার নাও তুমি নিজের রক্ষা নিজে করে
ধর্ষক মুক্ত করো এই ভূমি।
সময় অনেক হয়েছে নষ্ট
আর কিন্তু সময় নেই,
এবার এসো এই মন্ত্রে-দীক্ষিত হও,
পা’য়ের গিরা হাতের কব্জি
গড়ে তোলো বর্ম করে
যেখানেই ধর্ষক পাবে
মারো কষে ধর্ষকের শিশ্ন আর ঐ অণ্ডকোষে….

চুনি অপরাজিতা

Leave a Reply

Your email address will not be published.